webdesign

ওয়েব ডিজাইন শেখার পূর্নাঙ্গ গাইডলাইন – নতুনদের জন্য


ওয়েব ডিজাইন কি?
ওয়েব ডিজাইন বলতে বোঝানো হয় ওয়েব সাইটকে ডিজাইন করা। এখন ওয়েবসাইট জিনিসটা কি এটা না জানলে ব্রাউজার এ গিয়ে গুগল এ সার্চ দিন। যদিও গুগল একটি সার্চ ইঞ্জিন কিন্তু এটাও একটি ওয়েবসাইট। ওয়েবসাইট মূলত দুই ধরনের হয়ে থাকে। একটি স্টেটিক আরেকটি হলো ডায়নামিক। এখন কথা হচ্ছে ওয়েব ডিজাইনটা কি? একদম সহজ কথায় যদি বলতে চাই ওয়েব ডিজাইন হচ্ছে স্টেটিক ওয়েবসাইট তৈরি করা। অর্থাৎ একটি ওয়েবসাইট দেখতে কেমন হবে?এর কোথায় কি থাকবে,কোথায় কোন রং ব্যবহার করব,কোথায় কোন গ্রাফিক্যাল কন্টেন থাকবে যেমন ছবি বা স্লাইড থাকবে এগুলো বিভিন্ন ওয়েব টেকনোলজি ব্যবহার করে তৈরি করাটাই মূলত ওয়েব ডিজাইন। আর যারা এই কাজটি করে থাকে তাদের ওয়েব ডিজাইনার বলে। আর স্টেটিক ওয়েবসাইট তৈরি করা হচ্চে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এবং যারা এ কাজ করে তাদের ওয়েব ডেভলপার বলে। ওয়েব ডিজাইন এর পরের ধাপটাই ওয়েব ডেভেলপমেন্ট। এজন্য প্রতিটি ওয়েব ডেভলপারই ওয়েব ডিজাইনার কিন্তু প্রতিটি ওয়েব ডিজাইনার, ওয়েব ডেভলপার নয়।
ওয়েব ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগে একদম নতুন হিসাবে ওয়েব ডিজাইন শিখতে গেলে ৩ মাসের মতো সময় লাগতে পারে। তবে কিছুটা বেশি সময় ও পরিশ্রম দিলে ২ মাসের মধ্যেই আপনি HTML and CSS ভালো ভাবে আয়ত্ব করতে পারবেন। ফ্রি ওয়েব ডিজাইন কোর্স (ভিডিও) ওয়েব ডিজাইন শিখা শুরু করতে হলে আপনাকে অবশ্যই এইচ.টি.এম.এল সর্বপ্রথম শিখতে হবে। তার পর ধারাবাহিকতায় সিএসএস ও জাভাস্ক্রিপ্ট শিখতে হবে। টিউটোরিয়াল দেখে তা সাথে সাথে প্রাকটিস করা হলো HTML , CSS, and Javascript শিখার সবচেয়ে ভালো উপায় । নিচের লিষ্ট থেকে আপনি HTML , CSS and Javascript শিখতে পারেন। Web Design Course full video

  1. Basic HTML Course Video
  2. Basic CSS Course
  3. Basic Javascript Course
  4. এইখান থেকে বেসিক HTML, CSS and Javascript শিখার পর আপনাকে শিখতে হবে কিভাবে PSD to HTML করতে
  5. হয়। কারন একটি ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে হলে অনেক গ্রাফিক্যাল কন্টেন্ট নিয়ে কাজ করতে হয়। আর এটা
  6. করার জন্য ফটোশপ হচ্ছে সবচেয়ে কার্যকরী টুলস। ফটোশপ শিখলে আপনি অপনার প্রয়োজনমতো
  7. ওয়েবসাইটের জন্য গ্রাফিক্যাল কন্টেন্টগুলো মডিফাই করে নিতে পারবেন। আরও একটি বড় সুবিধা হচ্ছে
  8. ফটোশপ দিয়ে পুরো ওয়েবসাইট এরই ডিজাইন করা যায়। এক্ষেত্রে ওয়েবসাইট এর ডিজাইনটি তৈরি করে
  9. সেটাকে এইচটিএমেল ফাইলে রুপান্তর করতে হয়। একে পিএসডি টু এইচটিএমেল কনভারসন ও বলা হয়ে থাকে।
  10. PSD to HTML
  11. আপনি যদি ফটোশপে নতুন হয়ে থাকেন, তাহলে আপনাকে ফটোশপের বেসিক জিনিসপত্রগুলি শিখে নিতে হবে
  12. Basic Adobe Photoshop

কোথায় কাজ পাবেনঃ
বর্তমানে সারাবিশ্বে ৬৪৫ মিলিয়ন এরও বেশি একটিভ ওয়েবসাইট আছে। আর ইন্টারনেট এত জনপ্রিয়তা দিন দিন কতাটা বেড়ে চলেছে তা নতুন করে বলার কিছুই নেই। এবং ইন্টারনেট মানেই ওয়েবসাইইট ও ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন। ইন্টারনেট ব্যবহার করে আমি যখনই কোন কিছু করতে যাবো আমাকে কোন না কোন ওয়েবসাইট বা ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন এর মাধ্যমে সেটা করতে হবে। তাই ওয়েব ডিজাইন এর গুরুত্ব কত সেটা বুঝতে খুব বেশি কষ্ট করা লাগবে না। বর্তমানে বাংলাদেশে অফিশিয়াল ভাবে যে পরিমাণ দক্ষ ওয়েব ডিজাইনার বা ডেভলপার প্রয়োজন তার মাত্র ২০% এই সেক্টরে কাজ করছে। এ জন্য দক্ষ ওয়েব ডিজাইনার ডেভলপার এর চাহিদা অনেক। এটাতো হলো চাকরির কথা
এছাড়াও ফিল্যান্স আউটসোর্সিং এ ওয়েব ডিজাইন ও ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এর কাজের চাহিদা সব চেয়ে বেশি। তাই আপনি কেন ওয়েব ডিজাইন শিখবেন তা বুঝতেই পারছেন। কিন্তু শুধু মাত্র ওয়েব ডিজাইন অর্থাৎ HTML, CSS and JavaScript শিখে কাজ পাওয়া কঠিন কারণ বর্তমানে কমবেশি সবাই ডায়নামিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে চায়। এজন্য আপনাকে এসব এর পাশাপাশি ডায়নামিক ও শিখতে হবে।
কারণ ডায়নামিক না শিখলে আপনি নিখুঁত কোডিং করতে পারবেন না। ডায়নামিক এর কথা মাথায় না রেখে কোড করতে গেলে আপনাকে অনেক ঝামেলা পোহাতে হবে। তাই ডায়নামিক এর কথা মাথায় রেখে কোডিং করতে হয়। আপনি কোথায় কোথায় কাজ খুঁজে পেতে পারেব তার কিছু লিংক দেওয়া হলো –
http://upwork.com
http://freelancer.com
http://themeforest.net

কাজ পেতে হলো কি করনীয়ঃ

আপনার ক্লায়েন্টকে আপনার নিজের করা পূর্বের কাজের উদাহরন দেখাতে হবে । এই কাজকে পোর্টফোলিও (Portfolio) বলা হয়ে থাকে। আপনার কাজ নির্ভর করে পোর্টফলিও এর উপর। পোর্টফলিও যত বেশি প্রফেশনাল হবে আপনার, আপনি কাজ তত তাড়াতাড়ি পাবেন। এর জন্য আপনি একটা ডোমেইন বা হোষ্টিং কিনতে পারেন এবং তাতে আপনার করা টেমপ্লেটগুলি আপলোড করে তার লিংক দিয়ে রাখতে পারেনে। এতে আপনার ক্লায়েন্ট আপনার দক্ষতা সম্পর্কে বেশ ভালো ধারনা পেতে পারে। একটা পোর্টফোলিং ওয়েবসাইট বানানো ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে খুবই সহজ।
নিজেকে আপডেট রাখার জন্য যে সব ওয়েবসাইট ব্রাউজ করতে হবেঃ
=> https://shapebootstrap.net/
=> https://themeforest.net/category/site-templates
=> https://webdesign.tutsplus.com/
=> http://www.hongkiat.com/blog/category/design/
যখন আপনি এডভান্স হবেন তখন এই ওয়েব সাইটগুলি কিন্তু নিয়মিত ফলো করতে হবে। নিত্যনতুন খবরাখবর রাখার জন্য।

Writer Tunazzina Arpita

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here