logo-design-free-tools

ফ্রিতে লোগো ডিজাইন এর কিছু সফটওয়্যার ও সাইট
আর তাই লোগো ডিজাইন এর চাহিদা প্রচুর। একটা ইউনিক লোগো নিজের ব্যবসায় সবাই চায়। বর্তমানে লোগো ডিজাইনারদের ও প্রচুর চাহিদা। তাই একজন ছোটখাটো সল্প পুজিঁর ব্যবসায়ীরা লোগো ডিজাইনার দিয়ে তাদের লোগো ডিজাইন করাতে পারে না কারণ এতে তাদের প্রচুর অর্থ ব্যায় করতে হবে। তাদের জন্য একটি সুবিধার বিষয় হলো ইন্টারনেট এমন কিছু সফটওয়্যার ও ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে আপনি সম্পুর্ন ফ্রীতে ইন্টারনেট ব্যবহার করে লোগো তৈরি করতে পারবেন। এইসব সফটওয়্যার ও ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে আপনি নিজেই আপনার ব্যবসার জন্য সুন্দর মানানসই এবং পেশাদার একটি লোগো ডিজাইন করতে পারবেন। আপনার সুবিধার জন্য আপনাকে সেইসব সফটওয়্যার ও ওয়েবসাইট সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হলো

ফ্রী লোগো ডিজাইন
এই সফটওয়্যারটি চালু হয়েছে ২০১৫ সালে। এই লোগোটিতে এইচটিএমএল ৫ লোগো ক্রিয়েটার রয়েছে। এটি দিয়ে এখন পর্যন্ত ১৮৯টি দেশের মানুষ ২০ লক্ষ্যের ও বেশি লোগো ডিজাইন করেছেন। এর বৈশিষ্ট্য গুলো হলো – এতে ফ্রীতে লোগো তৈরি করতে পারবেন। আর এই সফটওয়্যার দিয়ে লোগো তৈরি করতে আপনার কোন অভিজ্ঞতা বা দক্ষতা না থাকলেও সমস্যা নেই। ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ এডিটর দিয়ে সহজেই নিজের সংস্থার লোগো তৈরি করতে পারবেন। আপনি এই সফটওয়্যার এ অসংখ্যক মানানসই লোগো ডিজাইন টেম্পলেট দেখতে পাবেন যেখান থেকে নিজের পছন্দমতো একটি লোগো ডিজাইন বেছে নিতে পারবেন।

ক্যানভা
এই সফটওয়্যার টি জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে সবসময় তালিকের প্রথমে দিকে থাকে। এই সফটওয়্যার টি শুধু লোগো ডিজাইন নয়,লোগো ডিজাইন থেকে শুরু করে সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট তৈরি ইত্যাদি অনেক কাজে লাগে। এই সফটওয়্যার এর বৈশিষ্ট্য হলো – ফ্রীতে লোগো ডিজাইন করার পাশাপাশি কোন টাকা না দিয়ে তা ১০০০ জন মানুষের সাথে শেয়ার ও করতে পারবেন। এতেও লোগো ডিজাইন এর অসংখ্য টেম্পলেট দেওয়া থাকে যেখান থেকে আপনি আপনার পছন্দসই উপযুক্ত লোগোটি বেছে নিতে পারেন। তাছাড়া এই সফটওয়্যার টিতে আপনি বিনামূল্যে খুলতে পারেন এবং আপনার করা লোগো গুলো সেখানে সেভ করা থাকে। তাই আপনি আপনার তৈরিকৃত লোগো আপনার কোন কম্পিউটার বা মোবাইলের মধ্যে সেভ করে না রাখলে ও হারিয়ে ফেলার কোন ভয় নেই। আপনি
চাইলে নিজ থেকেই আগের করা কোন লোগো বা ছবি এতে আপলোড করে সাজিয়ে রাখতে পারেন।

ইউক্রাফট
এই সফটওয়্যার টি চালু হয়েছে ২০১৪ সালে। এই সফটওয়্যার টিতে আপনি চাইলেই আপনার ব্যাবসা বা পার্সোনাল ব্র‍্যান্ডিং এর মানানসই লোগো ডিজাইন তৈরি করে নিতে পারেন। এর বৈশিষ্ট্য হলো – এতে প্রায় বিশ লক্ষ্যের ও বেশি লোগো আইকন সংগ্রহ করা আছে। আপনি শুধু আপনার ব্যাবসার সাথে মানাবে এমন
একটি উপযুক্ত লোগো বেছে নিলেই চলবে। এই সফটওয়্যারটি তে আপনি ড্র‍্যাগ ও ড্রপ করার সুবিধা পাবেন। আপনি চাইলে টুলবার ব্যবহার করে আপনার নিজের পছন্দ মতো আকার আকৃতি, রং, লেখা ইত্যাদি দিয়ে লোগো ডিজাইন করতে পারবেন। আপনার লোগো ডিজাইন করা শেষ হলে আপনি তা বিনামূল্যেঅ ডাউনলোড করে রাখতে পারবেন।

লোগোমেকার
এটি এমন একটি সফটওয়্যার যেটি ডিজাইন ও পেশাদারিত্বের পাশাপাশি সাইকোলজিক্যাল ব্র‍্যান্ডিংকে ওগুরুত্ব দেয়। এই জন্য এই সফটওয়্যার দ্বারা তৈরি লোগোকে অন্য সফটওয়্যার দ্বারা তৈরি লোগো হতে আলাদা করে চেনা যায়। আপনি চাইলে কাজ শুরু করার আগে অজস্র লোগো দেখে নিয়ে চেক করতে পারেন। এই সফটওয়্যারটির বৈশিষ্ট্য হলো – আপনি সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে আপনি নিজে নিজেই লোগো তৈরি করতে এবং সাজাতে পারবেন। এই সফটওয়্যার এ ফ্রীতে লোগো তৈরির সাথে সাথে আপনি আপনার করা ডিজাইন যত খুশি সংশোধন ও করতে পারবেন। এই সফটওয়্যার এ অসংখ্য গ্রাফিক্স ডিজাইন ও কাস্টম ডিজাইন রয়েছে যা আপনি আপনার লোগোতে ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি চাইলে প্রত্যেক প্রেজেন্টেশন এ ৪-৬ টি ডিজাইন দেখাতে
পারেন এবং বিনা খরচে আপনি আপনার তৈরি করা ডিজাইনটি ডাউনলোড ও করে নিতে পারবেন।
অনলাইন লোগোমেকার
এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনি আপনার সৃজনশীলতা কে কাজে লাগানোর যথেষ্ট সুযোগ পাবেন। শুধু লোগো ডিজাইন নয় এই সফটওয়্যার এ আপনি এসইও এর অ কাজ করতে পারবেন। এই সফটওয়্যার এর বৈশিষ্ট্য হলো এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে নিজের মনের মতো আকার ও ডিজাইনে সাজিয়ে লোগো ডিজাইন করার জন্য নানা রকম টুল রয়েছে। লোগো তে ব্যবহার করার জন্য আপনি এই সফটওয়্যার এ অসংখ্যক ছবি পেয়ে যাবেন। এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে আপনি ক্লাসিক ডিজাইনের লোগো ও তৈরি কএ নিতে পারেন।

ফ্রীতে লোগো ডিজাইন এর সাইট : টেইলর ব্র‍্যান্ডস লোগো মেকার টেইলর ব্র‍্যান্ডস দিয়ে চাইলেই আপনি খুব সহজেই একটি লোগো তৈরি করতে পারবেন। লোগো তৈরি করার জন্য আপনাকে সাইটে গিয়ে সাইন আপ করতে হবে। আপনি তাদের কে কিসের জন্য লোগো তৈরি করবেন তার ইনফোরমেশন দিলেই তারা আপনাকে খুব সুন্দর একটি লোগো তৈরি লরে দিবে। শুধু একটি দিবে যে এমন নয়। আপনাকে তারা বিকল্প কিছু লোগো ও দিবে। যদি আপনার তা মন মতো না হয় তবে আপনি আপনার মন মতো হওয়া পর্যন্ত লোগাও ক্রিয়েট করতে পারবেন। এখানে লোগো গুলো রেডিমেট হলেও আপনি আপনার মন মতো লোগোর ফ্রন্ট, টেক্সট, স্টাইল চেঞ্জ করার সুযোগ পাবেন। লোগো তৈরি শেষ করে লোগোটি অল্প কিছু পেমেন্ট এর মাধ্যমে ডাউনলোড করে নিতে হবে।লুকা’স লোগো মেকার
লুকা’স লোগো মেকার এ লোগো ডিজাইন করার পদ্ধতি আর টেইলর ব্র‍্যান্ড’স লোগো মেকার এর ডিজাইন করার পদ্ধতি অনেকটা একই। আপনার কেমন লোগো লাগবে কিসের জন্য লাগবে আপনার কি ধরনের স্টাইল চাই এই সব ইনফরমেশন দিতে হবে আপনাকে। এই সাইটে তৈরি করা প্রত্যেকটা লোগোকে আপনি তিনটি কালার এবং তিনটি স্টাইলে পরিবর্তন করতে পারবেন। যদি আপনার তা দরকার না হয় তাহলে ইগনোর ও করতে পারেন। আপনাকে অবশ্যই এই সাইটে লোগো ডিজাইন করতে হলে সাইন ইন বা একাউন্ট তৈরি করতে হবে। এইখানে লোগো ডিজাইন করার সময় আপনি নিজের মন মতো কালার, ফ্রন্ট, টেক্সট, আরও অসংখ্য স্টাইল পরিবর্তন করতে পারবেন। এই লোগোটি কে ডাউনলোড করতে আপনাকে কিছু সল্প পরিমাণ টাকা খরচ করতে হবে।

কন্সট্যান্ট কন্টাক্ট’স লোগো মেকার

আগের দুইটি লোগো মেকার থেকে কন্সট্যান্ট কন্টাক্ট’স লোগো মেকারে লোগো তৈরি করা আরও বেশি সহজ। এই সফটওয়্যার এ আপনি শুধু আপনার ব্র‍্যান্ড নেইম দিবেন। সাথে সাথে তারা আপনাকে ৬ বিভিন্ন ধরনের লোগো তৈরি করে দিবে। আপনি সেখান থেকে একটি লোগী বেছে নিবেন। এর মধ্যে থেকে এক্টিন্ব যদি আপনার পছন্দ না হয়ে থাকে তাহলে আপনি মোর অপশনে ক্লিক করতে পারেন। আপনি যদি সাইটে একটি ফ্রী একাউন্ট করেন তাহলে আপনি লোগোকে কাস্টমাইজ করতে পারবেন যেমনঃ – কালার, টেক্সট স্পেস, টেক্সট স্টাইল আরও অনেক কিছু পরিবর্তনের সুবিধা পাবেন। আপনি এই একাউন্টটি করে থাকলে তারা আপনার বানানো লোগাটি কথায় কেমন দেখাবে যেমনঃ – ওয়েবসাইটে, সোশ্যাল সাইটে, এমনকি একটি টি-শার্ট এ দেখতে কেমন হবে তা আপনাকে
প্রিভিউ করবে। সবচেয়ে ভালো দিক হলো আপনার তৈরি করা লোগোটি ডাউনলোড করতে আপনাকে এক টাকা ও খরচ করতে হয় না।

হ্যাচফুলঃ শপিফাই’স লোগো মেকার
কন্সট্যান্ট কন্টাক্ট’স লোগো মেকার এর মতোন এই সাইটেও লোগো ডিজাইন করা অনেক সহজ ও মজার। সামান্য কিছু ইনফরমেশন এর বিনিময়ে তারা আপনার সামনে তুলে ধরবে দারুন দারুন সব লোগো। যতক্ষণ পর্যন্ত না আপনার লোগো পছন্দ হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত আপনি লোগো বাছাই করা সুযোগ পাবেন। আগের সাইটের মতো শুধু একটি ফ্রী একাউন্ট করে ফেললেই আপনি আপনার পছন্দ মতো লোগোটিকে কাস্টমাইজ করতে পারবেন। এই সাইটে ও আপনাকে আপনার লোগো কোথায় কেমন দেখতে হবে তা প্রিভিউ করবে এবং পাশাপাশি আপনার সাইটের ফেভিকনও তৈরি করে দিবে। আর এই সাইট থেকে ও আপনার তৈরি করা লোগোটি ডাউনলোড করতে আপনাকে এক টাকা ও খরচ করতে হবে না।

ইউক্রাফট’স লোগো মেকার একদম ফ্রীতে আপনি ইউক্রাফট’স এ লোগো তৈরি করতে পারবেন। এমনকি আপনার তৈরি করা লোগোটি ডাউনলোড করতে আপনাকে টাকা দিতে ও হবে না। কিন্তু সমস্যা হলো আগের আলোচনা করা সাইটের মতো এতে আপনি কোন লোগো জেনারেট বা রেডিমেট ট্যাম্পলেট দেখতে পাবেন না। এই সাইটটি আপনাকে লোগো তৈরি করার জন্য একটি খালি জায়গায় দিবে । আপনি সেখানে আপনার পছন্দ মতো আইকন ব্যবহার করে লোগো তৈরি করে নিবেন। আপনার জন্য তারা অল্প কিছু ফ্রন্টও দিয়ে দিবেন। তাছাড়া আপনি চাইলে নিজ থেকে কিছু ফ্রন্ট আপলোড করে নিতে পারেন। এই সাইটে লোগো ডিজাইন তৈরির পদ্ধতি অনেক সোজা। মাউস দিয়ে বিভিন্ন শেইও,টেক্সট, আইকন সিলেক্ট করবেন আর আপনার লোগো তৈরি হয়ে যাবে ।