স্মার্টফোন কেনার আগে যে ৭টি জিনিস আপনার জানা দরকারঃ স্মার্টফোন আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে গুরুত্বপূর্ণ বস্তু।বতমান যুগে স্মার্টফোন ছাড়া চলা যায় না।দিন দিন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী সংখা বাড়ছে।

বতমান যুগ তথ্য প্রযুক্তি যুগ এখন সব কাজ স্মার্টফোনও কম্পিউটার দিয়ে করতে হয়।

তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার এখন স্মার্টফোন রয়েছে যা দিয়ে এখন অনেক প্রয়োজনীয় কাজগুলো করা যায়।

আমারা অনেকে আছি যারা স্মার্টফোন কিনে থাকি।স্মার্টফোন কেনার আগে আমাদের অনেক জিনিস আছে যা আমরা জানি না।

আপনি যদি স্মার্টফোন কেনার আগে সে বিষয় না জানেন তাহলে ভালো ফোন আপনি কেনটি পারবেন না।

ফোন কেনার সময় আপনাকে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে!

  • র‍্যাম
  • রম/স্টোরেজ
  • ব্যাটারি
  • ক্যামেরা
  • ডিসপ্লে
  • প্রসেসর
  • বাজেট

র‍্যামঃ

ফোনের র‍্যাম গুরুত্বপূর্ণ যা আপনার ফোনের গতি নিভর করে।ফোনে র‍্যাম কম থাকে তাহলে ফোন স্লো কাজ করে।ফোনের অনেক এপ র‍্যাম জন্য ইনস্টল হয় না।

ফোন কেনার সময় আপনাকে র‍্যাম ভালো দেখে নিতে হবে যাতে আপনি ফাস্ট কাজ করতে পারেন।

ফোন কেনার আগে র‍্যাম মিনিমাম ৩জিবি নিবেন বাজেট ভালো থাকে তাহলে আরো বেশি নিবেন।

একটা কথা মাথা রাখবেন ফোনের র‍্যাম বেশি থাকে তাহলে আপনার স্মার্টফোন ফোনটি দ্রুত কাজ করবে।

রম/স্টোরেজঃ

এখন বাজারে বিভিন্ন স্টোরেজ ফোন পাওয়া যায় যেমনঃ১৬জিবি,৩২জিবি,৬৪জিবিও১২৮ জিবি।

ফোনের স্টোরেজ কম হলে ফোন হ্যং করবে ফোন স্লো হয়ে যাবে।আপনারা ফোন কেনার সময় সবনিম্ন ৩২ জিবি স্টোরেজ কেনবেন বেশি কিনলে আরো ভালো।স্টেরেজ জন্য আপনার ফোন দ্রুত কাজ করবেন।

ব্যাটারিঃ

স্মার্টফোন ব্যাটারি গুরুত্বপূর্ণ যা করনে অনেক ফোন নিভর।ফোনের ব্যাটারি ব্যাকাপ যদি ভালো না হয় তহলে সে স্মার্টফোন আমাদের কাছে রিরক্ত কর মনে হয়।ফোনের বিভিন্ন আম্পিয়ার ব্যাটারি রয়েছে।আমরা মতে আপনারা ফোন কেনার সময় ৪০০০০ বা ৫০০০ আম্পিয়ার ফোনগুলো কিনবেন।এতে করে আপনার ফোনের চাজ ভালো থাকবে একবার চাজ দিলে পরো ১-২ দিন চলে যাবে।

ক্যামেরাঃ

আমরা অনেক ছবি তুলরে পছন্দ করি।অনেকে ছবি তোলার জন্য ‘ডিজিটাল ক্যামেরা’ কিনি কিন্তু বতমান স্মার্টফোন বাজারে কিছু ফোন বাজারে এসেছে যেগুলো দিয়ে আপনি ডিজিটাল ক্যামেরা মতো ছবি তুলতে পারবেন।

ফোন কেনার আগে আপনি মিনিমাম পিছনে ৮মেগাপিক্সেল ওসামনে ৫মেগাপিক্সেল ফোন নিবেন যদি বাজেট ভালো থাকে বেশি মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ফোন নিবেন।

ফোনের ক্যামেরা পিক্সেল যতো ভলো হবে ছবি ততো ভালো হবে।

ডিসপ্লেঃ

ফোনে ডিসপ্লে আপনার ফোন-টিকে অনেক ভালো দেখায় আপনার ফোনে ডিসপ্লে বড় হলে ভালো হয়।

আপনি স্মার্টফোন কেনার সময় ৬ ইঞ্চি কিনবেন আপনার ইচ্ছা আপনার কত ইঞ্চি ভালো লাগবে।

ফোনের ডিসপ্লে শুধু বড় হলে হবে না তাতে ভালো কোয়ালিটি ভিডিও ও গেম খেলা যায়।ফোনের ডিসপ্লে যাতে উজ্জ্বল দেখায়।

প্রসেসরঃ

ফোনের ভালো পারফোমেস জন্য প্রসেসর গুরুত্বপূর্ণ। স্মার্টফোন প্রসেসর ভালো হলে ফোন গরম হবে না কিন্তু অনেক ফোনের প্রসেসর ভালো না থাকায় ফোন গুলো অনেক গরম হয়।

বতমান বাজারে অনেক স্মার্টফোন এসেছে যেগুলো ভালো প্রসেসর দেখা যেমনঃ যার কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫, ৮৫৫, ৮৪৫, ৮৩৫, ৭৩০, ৭১২, ৬৬০, ৬৩৬; স্যামসাং এর এক্সিনস ৯৮২৫, ৯৮২০, ৯৮১০, ৮৮৯৫, ৮৮৯০, মিডিয়াটেক হেলিও পি৯০, পি৭০, এক্স৩০ ইত্যাদি ভালো মানের প্রসেসর।

ফোন কেনার আগে দেখে নিবেন আপনার ফোনের প্রসেসর কি ধরনের সে অনুযায়ী স্মার্টফোন ক্রয় করবেন।

বাজেটঃ

স্মার্টফোন কেনার সময় আপনাকে ভালো মানের স্মার্টফোন কিনতে হবে।আমাদের দেশে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী আছে যারা কম দামে ভালো কপি ফোন বাজারে সেল দিচ্ছে যার কারণে অনেকে ফোন কেনার আগ্রহ হারিয়ে ফেলে।

আপনাকে আপনাকে আমি সাজেস্ট করবো ভালো ব্যান্ডের ফোন শো-রুম ক্রয় করবেন এতে করে আপনি ভালো মানের ফোন পাবেন।

আপনার স্মার্টফোন কিনতে যাবেন ভালো ব্যান্ডের ফোন এবং আমার দেওয়া অভিজ্ঞতা টিপস গুলো ফলে করে কিনবে এতে করে আপনি ভালো স্মার্টফোন কিনতে পারবেন।

আপনি নতুন স্মার্টফোন কিনতে চাইলে আমাদের সাইটে ফোন রিভিউ ক্যাটাগরিতে থেকে তা দেখে নিতে পারেন কি কি ফিচার আছে।আমরা নতুন স্মার্টফোন রিভিউ করে থাকি।

Sohan
সময়ের সাথে আপোষ করছি বিনম্র শ্রদ্ধায়, জুড়ছি তাইতো সময়কে নিয়ে অজস্র অধ্যায়!