iphone 12

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর Apple নিয়ে আসলো Iphone 12, যাতে আছে 5G সহ আরো শক্তিশালী ফিচারসমূহ । প্রথমবারের মত Apple কোম্পানি এক সঙ্গে চারটি ফোন বাজারে নিয়ে আসলো । সে চারটি মডেল হলো iPhone 12, iPhobe 12 Mini, iPhone 12 Pro এবং iPhone 12 Pro Max । 5জি সাপোর্টেড iPhone 12 দিয়ে Apple কোম্পানি মোবাইল বাজারে বৃহত্তর স্থান দখল করবে বলে আশা করা যাচ্ছে। আজকে আপনাদের আপনাদের জানাবো iPhone 12 সম্পর্কে বিস্তারিত ।

Apple তাদের iPhone 12 সিরিজে iOS14 অপারেটিং সিস্টেম যোগ করেছে যাতে রয়েছে আগের চেয়ে বেশি কাস্টমাইজেশন ফিচার । আইওএস 14 এ বিভিন্ন আকারে উইগেটস অ্যাড ও কাস্টমাইজের সুবিধার জন্য এতে নতুন ‘উইগেটস গ‍্যালার’ এবং ‘স্মার্ট স্টেক’সংযুক্ত করা হয়েছে । যাতে আরো যুক্ত করা হয়েছে নতুন অ্যাপ লাইব্রেরির পাশাপাশি সিকিউরিটি ও ম‍্যানেজমেন্টের ফিচার । ডিজাইন iPhone 12 Pro Max এবং iPhone 12 Pro দুটি ফোনই মেটাল ইউনিবডি ডিজাইন দিয়ে তৈরি করা হয়েছে সাথে বডিতে দে্ওয়া হয়েছে স্টেইনলেস স্টীল। ফোনটির ডিসপ্লের ওপর দিকে সংযুক্ত করা হয়েছে চওড়া নচ এবং ডিসপ্লেটি সম্পূর্ণ বেজেলস এর। এছাড়া্ও iPhone এর পিছনে স্বাভাবিক ভাবেই মাঝ বরাবর Apple এর লোগো দেওয়া আছে। ডিসপ্লেiPhone 12 Pro Max এবং iPhone 12 Pro মূলত শুধুমাত্র স্ক্রিন সাইজ ও ব্যটারির দিক থেকেই আলাদা।

iPhone 12 Pro Max তে ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে 6.7 ইঞ্চি এবং iPhone 12 Pro এর ক্ষেত্রে 6.1 ইঞ্চি । দুটি ফোনেই ব্যবহার করা হয়েছে সেরামিক শীল্ড কার্ভড ডিসপ্লে।iPhone 12 Pro তে 2532 × 1170 পিক্সেল রেজুলিউশন এবং 460 পিপিআই পিক্সেল এর OLED ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। অন‍্যদিকে iPhone 12 Pro Max এর ক্ষেত্রেও OLED ব‍্যবহার করা হয়েছে কিন্তু এর রেজলিউশন 2778 × 1284 পিক্সেল এবং 458 পিপিআই। দুটি ফোনই 1200 নিটস ব্রাইটনেসে ভিজুয়াল দিতে সক্ষম।ক্যামেরা iPhone 12 Pro Max এবং iPhone 12 Pro তে এলইডি ফ্লাশসহ ট্রিপল রেয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে । এতে যুক্ত করা হয়েছে F/1.6 অ্যাপার্চারযুক্ত 12 মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর । এটি 26 এমএম ফোকাল লেন্থ সাপোর্টেড আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স। আইফোনের এই সেন্সরটি OIS ফিচারযুক্ত। এছাড়াও দুটি ফোনেই F/2.0 অ্যাপার্চারযুক্ত 12 মেগাপিক্সেলের লেন্স আছে। এই 52mm ফোকাল লেন্থের সঙ্গে 4x ডিজিটাল জুম সাপোর্ট করে। এই লেন্সেও OIS ফিচার দেওয়া হয়েছে। এর সঙ্গে12 মেগাপিক্সেলের ডেপ্থ সেন্সর দেওয়া হয়েছে তৃতীয় সেন্সর হিসেবে ।প্রসেসর নতুন আইফোন সিরিজ 5G সাপোর্টেড। iPhone 12 Pro এবং iPhone 12 Pro Max উভয় ফোনে 5 ন্যানোমিটার ফেব্রিকেশনে তৈরি অ্যাপেল বায়োনিক এ14 চিপসেটে রান করে। এই চিপসেট 16 কোর নিউরাল ইঞ্জিনের এবং এটি ফোনের পারফরম্যান্স 80 শতাংশ বুস্ট করতে পারবে । এই চিপসেটে যোগ করা হয়েছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স টেকনিক যা AR tasks সম্পর্কিত বিভিন্ন কাজ দ্রুত করতে পারে ।

কোম্পানি জানিয়েছে এটি আগের চেয়ে বেশি দ্রুত এবং আগের চেয়েও সিকিওর। তবে কোম্পানি রেম সম্পর্কে কোন কিছু জানায়নি ।ভেরিয়েন্ট ও দাম ভারতে তিনটি ভেরিয়েন্টে সেল করা হবে iPhone 12 Pro ।128 জিবি স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের দাম 1,19,900 টাকা, 256 জিবি স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের দাম 1,29,900 টাকা এবং 512 জিবি স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের দাম 1,49,000 টাকা।iPhone 12 Pro Maxও তিনটি ভেরিয়েন্টে বিক্রি হবে। এটিও 128 জিবি, 256 জিবি এবং 512 জিবি মেমরি ভেরিয়েন্ট যথাক্রমে 1,29,900 টাকা, 1,39,900 টাকা এবং 1,59,000 টাকা দাম দরা হয়েছে।আগামী 13 নভেম্বর থেকে ভারতে ফোন দুটি সেল করা হবে।

আইফোন ১২ নিয়ে এই আর্টিকেল টি লিখেছেন শাহিন

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here